মৌজা কিভাবে বের করবো? মৌজা ম্যাপ বের করার নিয়ম

মৌজা কিভাবে বের করবো? মৌজা ম্যাপ বের করার নিয়ম

রাস্ট্রীয় এবং সামাজ জীবনে জায়গা জমির মৌজা ম্যাপ সংরক্ষিত রাখাটা আমাদের প্রত্যেক নাগরিক এর জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, আমরা প্রায় প্রত্যেক নাগরিকই জায়গা-জমির হিসেব নিয়ে বিভিন্ন ভাবে প্রভাবিত হয়ে থাকি। ঘরে বসেই অনলাইন থেকে মৌজা কিভাবে বের করবো এই বিষয়েই আজকের আলোচনা।

সমাজ জীবনে জায়গা-জমি নিয়ে দ্বন্ধ এড়াতে একটি মৌজা ম্যাপ অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনার কাছে যদি একটি মৌজা নকশা থাকে তবে আপনার নিজস্ব জায়গা-জমির রূপ-রেখা সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ ধারণা পাবেন।

কিন্তু দৈনন্দিন জীবনের নানা সীমাবদ্ধতার কারণে সবাই এই মৌজা ম্যাপ সংরক্ষণ করতে পারে না। এটি সংরক্ষণের জন্য ভূমি অফিসে দৌড়াদৌড়ির পাশাপাশি টাকা ও সময়ের অপচয়ও কম হয় না।

কিন্তু ডিজিটাল বাংলাদেশে প্রযুক্তির অগ্রগতিতে এখন নিজ ঘরে বসেই যে কোন জায়গার মৌজা আপনি খুব সহজেই দেখে নিতে পারবেন। পাশাপাশি অনলাইন থেকে সংরক্ষণও করতে পারবেন।

মৌজা বের করার নিয়ম কি চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

মৌজা কিভাবে বের করবো?

ঘরে বসেই অনলাইনে মৌজা ম্যাপ দেখার জন্য বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইট রয়েছে। যেখানে শতভাগ ট্রাস্ট্রেড তথ্য পাওয়া যায় এবং এই তথ্য গুলো প্রতিনিয়তই হালনাগাত করা হয়।

মাত্র কয়েকটি স্টেপ ফলো করার মাধ্যমে আপনি আপনার যে কোন জায়গা-জমির মৌজা নকশা বের করতে পারবেন। স্টেপ বাই স্টেপ টিউটোরিয়াল আকারে মৌজা ম্যাপ বের করার নিয়ম দেখানো হলো।

আপনার একটি কম্পিউটার / ল্যাপটপ অথবা মোবাইল ডিভাইস প্রয়োজন হবে এবং কাঙ্খিত সেই ডিভাইসে ইন্টারনেট সংযোগ থাকবে হবে।

মৌজা দেখার জন্য Land.gov.bd এই ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করবো। এটি ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট। আপনার জমির মৌজা দেখার জন্য Land.gov.bd এই লিংকে প্রবেশ করুন।

স্টেপ -0১

মৌজা কিভাবে বের করবো

ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর উপরের ছবির মতো এমন একটি পেজ ওপেন হবে। পেজটিতে বেশকিছু অপশন দেখতে পাবেন।

এখান থেকে আপনাকে ”আর এস খতিয়ান” এর মাধ্যমে ক্লিক করতে হবে।

স্টেপ -0২

মৌজা বের করার নিয়ম

”আর এস খতিয়ান” এর মাধ্যমে ক্লিক করার পর উপরের ছবির মতো একটি পেজ ওপেন হবে। পেজটির উপরের হেডিংয়ে একটি মেনু দেখতে পাবেন।

যেখানে ”মৌজা ম্যাপ-অনলাইন আবেদন” নামের একটি মেনু রয়েছে। ঐ মেনুতে ক্লিক করুন।

স্টেপ -0৩

মৌজা ম্যাপ বের করার নিয়ম

”মৌজা ম্যাপ-অনলাইন আবেদন” মেনুতে ক্লিক করা পর উপরের ছবির মতো এমন একটি পেজ ওপেন হবে। এই পেজের খালিঘর গুলো আপনার কাঙ্খিত তথ্য দিয়ে পূরণ করতে হবে।

যেমন,

  • বিভাগঃ ঢাকা
  • জেলাঃ ঢাকা
  • উপজেলা / সার্কেলঃ মিরপুর
  • মৌজাঃ 001-মহরমবাড়ী
  • দাগ নং অনুযায়ীঃ
  • সিট অনুযায়ীঃ ১

উল্লেখ্য, এখানে দাগ নং অথবা সিট নং এর যে কোন একটি তথ্য দিলেই হবে। যেমন আমি এখানে সিট নং দিয়েছি ১ (এক)।

এই তথ্যগুলো অবশ্যই আপনি যেই মৌজার ম্যাপ দেখতে চাচ্ছেন সেই জায়গার লোকেশন অনুযায়ী তথ্য ব্যবহার করবেন।

স্প্যামিং রোধে একটি যোগফল দেওয়া হবে। আপনাকে সেই কাঙ্খিত যোগফলের সঠিক উত্তর প্রদান করতে হবে। যেমন এখানে বলা হয়েছে ৭+৬ কত? উত্তর ১৩ হবে। এই যোগফল প্রতিবারই পরিবর্তন হয়।

যোগফলটি সঠিকভাবে দেওয়ার পর “খুঁজুন” বাটনে ক্লিক করুন।

স্টেপ -0৪

মৌজা কিভাবে বের করব

“খুঁজুন” বাটনে ক্লিক করার পর আপনার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ফলাফল প্রদর্শন করবে। অর্থাৎ, আপনি আপনার কাঙ্খিত মৌজা ম্যাপটি দেখতে পাবেন।

এখন আপনি চাইলে এই ম্যাপটি আপনার কম্পিউটার অথবা মোবাইলে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। ইন্টারনেট থেকে অন্যান্য ছবি যেভাবে ডাউনলোড করেন, ঠিক একইভাবে আপনার মৌজা ম্যাপ Download করতে পারবেন।

এখানে একটি বিষয় দেখতে পাচ্ছেন যেখানে লেখা আছে ” সার্টিফাইড কপি পেতে আবেদন করুন।

আপনি যদি আপনার মৌজাটির সার্টিফাইড কপি অর্থাৎ অরিজিনাল প্রিন্ট কপিটি পেতে চান তবে ভূমি অফিসে আবেদন করতে পারেন। এজন্য আপনাকে ”সার্টিফাইড কপি পেতে আবেদন করুন” এই বাটনে ক্লিক করতে হবে।

স্টেপ -0৫

ঘরে বসেই মৌজা কিভাবে বের করবো

”সার্টিফাইড কপি পেতে আবেদন করুন” এই বাটনে ক্লিক করার পর একটি দীর্ঘ ফরম আপনার সামনে চলে আসবে। এই ফরমটি কাঙ্খিত তথ্য দিয়ে পূরণ করে নিতে হবে।

আপনার মৌজাটির সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করার জন্য ভূমি অফিসের একটি নির্দিষ্ট ফি রয়েছে। বর্তমানে ৬৩৫/= টাকা ধরা হচ্ছে। আবার প্রসেসিং ফি হিসেবে অতিরিক্ত ১% (৬.২৮) টাকা প্রদান করতে হবে।

তবে আপনার লোকেশনের জমির মৌজা রেট কত হবে তা আপনি সার্টিফাইড কপি সংগ্রহ করার সময় জেনে নিতে পারবেন।

তাছাড়া, মৌজা ভিত্তিক জমির মূল্য তালিকাটি দেখলে আপনি খুব সহজেই মৌজা মূল্য জানতে পারবেন। এই তালিকাটি আপনি ভূমি অফিসের ওয়েবসাইটে পেয়ে যাবেন।

সার্টিফাইড কপি পাওয়ার আবেদন করার পর ৩ দিনের মধ্যে ডেলিভারী হয়ে যাবে।

মৌজার সার্টিফাইড কপিটি ডেলিভারী হওয়ার পর আপনাকে  ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদপ্তর অথবা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে সংগ্রহ করতে হবে।

গুরুত্বপূর্ণ কিছু কথাঃ

প্রিয় পাঠক, আপনি চাইলে ভূমি অফিসের ওয়েবসাইটটি থেকে জমি সংক্রান্ত প্রায় সকল ধরণের সেবা পেতে পারেন। শুধু নিজস্ব জমির মৌজা নকশা নয়, ইউনিয়ন মৌজা তালিকা, উপজেলা সমূহের মৌজা ম্যাপের তালিকাও ভূমি অফিসের ওয়েবসাইটের থেকে পেতে পারেন।

যাইহোক, যারা প্রশ্ন করতেন ঘরে বসেই অনলাইনে মৌজা কিভাবে বের করবো? আমি আশা করছি মৌজা বের করার নিয়ম দেখানোর মাধ্যমে তাদের প্রশ্নের সুস্পষ্ট উত্তর দিতে পেরেছি।

আপনার যদি এই বিষয়ে আরো কোনো প্রশ্ন থাকে, তবে কমেন্টে জানাতে ভূলবেন না। আমি যথাসাধ্য আপনাকে সহযোগিতা করবো ইনশাআল্লাহ।

আর্টিকেলটি আপনার কাছে ভালো লাগলে আপনার প্রিয়জন এবং সোশ্যাল বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। সবাইকেই ধন্যবাদ।

Add comment